সারাদেশ

স্টাফ রিপোর্টার: ধোবাউড়া উপজেলা সদরে ধোবাউড়া আদর্শ ডিগ্রি কলেজের পূর্বপাশে অনেক বাড়ীঘরে জলাবদ্ধতার পানিতে সয়লাব। বর্ষায় পানি নিস্কাশনের কোন ব্যবস্থা না থাকায় চরম ভোগান্তির মধ্যে বাস করছিল স্থানীয়রা। বিষয়টি জানতে পেরে ৩ নং সদর ইউপি চেয়ারম্যান এরশাদুল হক এলাকাবাসীর দীর্ঘদিনের দাবী পূরণে উদ্যোগী হন। এলাকাবাসী বলছেন, ইউপি চেয়ারম্যান এরশাদুল হক একজন মননশীল ব্যাক্তি। আমরা তার দ্বারস্থ হলে তিনি নিজস্ব তহবিল থেকে মাটির নীচ দিয়ে পাইপ বসিয়ে পানি নিস্কাশনের ব্যবস্থা করার প্রতিশ্রুতি দেন এবং আজ তা বাস্তবায়ন করেন। পানি নিষ্কাশনের ব্যবস্থা করায় স্থানীয় জনগণ ইউপি চেয়ারম্যানকে সাধুবাদ জানিয়েছেন। এ খবর ছড়িয়ে পড়লে ধোবাউড়া বাজারের ব্যবসায়ীদের পক্ষ থেকে বাজারের জলাবদ্ধতা দূরীকরণে ইউপি চেয়ারম্যানের দ্বারস্থ হবেন বলে খবর পাওয়া গেছে।

 আজহারুল ইসলাম: আজ ধোবাউড়া মহিলা ডিগ্রি কলেজে স্বাধীনতা শিক্ষক পরিষদ ধোবাউড়া উপজেলা শাখা দোয়া মাহফিল ও ইফতারের আয়োজন করে। উক্ত আয়োজনে সংগঠনের ধোবাউড়া উপজেলা শাখার সভাপতি অধ্যক্ষ হেলাল উদ্দিনের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মোঃ নুরুল ইসলামের সঞ্চালনায় প্রধান অতিথি ছিলেন স্বাশিপ ময়মনসিংহ জেলা শাখার সদস্য সচিব মোঃ আফতাব উদ্দিন। ইফতারের পূর্বে প্রধান অতিথি স্বাশিপের ধোবাউড়া উপজেলা শাখার পূর্ণাঙ্গ কমিটি ধোবাউড়া উপজেলা শাখার সভাপতি অধ্যক্ষ হেলাল উদ্দিনের হাতে তুলে দেন। পরে পরিচিতি পর্ব ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় সংগঠনের সদস্যগণসহ আমন্ত্রিত অতিথিবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।Shaship Photo-1
Shasip-2Shasip 3

স্টাফ রিপোর্টার: ময়মনসিংহের ধোবাউড়ায় পানের দাম অতিমাত্রায় বৃদ্ধিতে নাভিশ্বাস উঠেছে ক্রেতাদের। বাজারে গিয়ে দেখা গেছে প্রতি বিড়া(৮০টি) পানের মূল্য ৩শত টাকা থেকে ৪শত টাকা দরে বিক্রি করা হচ্ছে। হঠাৎ পানের দাম এমন বৃদ্ধি পাওয়ায় গুটিকয়েক পান কিনে অনেককেই বিষন্ন মনে বাড়ী ফিরতে দেখা গেছে।

গ্রামে কুড়িঁ থেকে বুড়ি কমবেশি অনেকেই খাবার পর এক চিলতে পান মুখে না দিলে মানসিক তৃপ্তি পান না। অনেকের কাছে ভাতের চেয়েও পানের কদর বেশি। গ্রামীণ এই ঐতিহ্যের ধারক ও বাহক হিসেবে পান বরজ মালিকদের অবদানের কথা অনেকেই জানেননা। কুয়াশার কারণে এবার পানের পচন দেখা দেওয়ায় পান সরবরাহ হঠাৎ কমে গেছে। তাই পানের দাম কয়েক গুন বৃদ্ধি পেয়েছে বলে জানান ব্যবসায়ীরা।

স্থানীয় পান দোকানীরা প্রতি খিলি পানের মূল্য অনেক আগে থেকেই ৫টাকায় বিক্রয় করতো। এবার পানের দাম হাতের নাগালের বাইরে চলে যাওয়ায় দাম বাড়াতে বাধ্য হচ্ছেন। এ সমস্যা থেকে উত্তরণে অতি দ্রুত পান আমদানী না করলে স্থানীয় বাজারে বিক্রি বন্ধ হয়ে যেতে পানে বাঙ্গালির প্রিয় পান ও পানের খিলি। আর হঠাৎ পানের অভ্যাস ছেড়ে দিলে অনেকেই মানসিক ও স্বাস্থ্যগত যন্ত্রনায় ভূগবেন এমনটাই মনে করছেন পানসেবীরা।

তবে চিকিৎসকদের মতে, পানে রয়েছে কিছু টারফেনলস। পান খাওয়ার কারণে ঠোঁট ও জিহ্বাতে দাগ পড়ে যায়। দাঁতে প্রায় স্থায়ী দাগ পড়ে যায়। চুনে রয়েছে প্যারা অ্যালোন ফেনল যা মুখে আলসার সৃষ্টি করতে পারে। এ ধরনের ঘা ধীরে ধীরে ক্যান্সারে রূপান্তরিত হতে পারে। তাইওয়ানে গবেষণায় দেখা গেছে, সুপারি নিজেও ক্যান্সার সৃষ্টি করে থাকে অর্থাৎ সুপারি ক্যান্সার সৃষ্টিকারী উপাদান। সুপারি চুনের সাথে বিক্রিয়া ঘটিয়ে এরিকোলিন নামক একটি নারকোটিক এলকালয়েড উৎপন্ন করে। আবার চিকিৎসা বিজ্ঞানের ভাষায় এরিকোলিন প্যারাসিমপ্যাথেটিক স্নায়ুতন্ত্রের উত্তেজনা সৃষ্টি করে। এ কারণেই চোখের মণি সঙ্কুচিত হয় এবং লালার নিঃসরণের পরিমাণ বেড়ে যায়। শুধু তাই নয়, চোখে পর্যন্ত পানি আসতে পারে। কাঁচা সুপারি চিবালে উত্তেজক হিসেবে কাজ করে। সুপারিতে রয়েছে উচ্চমাত্রার সাইকোএকটিভ এ্যালকালয়েড। এ কারণেই উত্তেজনার সৃষ্টি হয়। কাঁচা সুপারি চিবালে শরীরে গরম অনুভূত হয়, এমনকি শরীর ঘামিয়ে যেতে পারে।

সুপারি খেলে তাৎক্ষণিক যেসব সমস্যা দেখা যায় সেগুলো হলো :

(ক) এ্যাজমা বেড়ে যেতে পারে,

(খ) হাইপারটেনশন বা রক্তচাপ বেড়ে যেতে পারে,

(গ) টেকিকার্ডিয়া বা নাড়ির স্পন্দনের পরিমাণ বেড়ে গিয়ে অস্থিরতা অনুভূত হওয়া।

দীর্ঘমেয়াদে সুপারি সেবন করলে ওরাল সাবমিউকাস ফাইব্রোসিস হতে পারে। ক্যান্সারের পূর্বাবস্থা বা স্কোয়ামাস সেল কারসিনোমা হতে পারে। মূলত আমাদের দেশে মুখের ক্যান্সারের মধ্যে স্কোয়ামাস সেল কারসিনোমা বেশি দেখা যায়। আমাদের দেশে পানের সঙ্গে সাদাপাতা বা জর্দা ব্যাপকভাবে গৃহীত হচ্ছে। ক্যান্সার গবেষণায় আন্তর্জাতিক সংস্থা আইএআরসির মতে, যারা পানের সঙ্গে তামাকজাতীয় দ্রব্যাদি গ্রহণ করে তাদের সাধারণের চেয়ে পাঁচ গুণ বেশি সম্ভাবনা থাকে ওরাল ক্যান্সারের রোগী হওয়ার ক্ষেত্রে। পানের সঙ্গে যে ধরনের তামাকসামগ্রী গ্রহণ করা হয় তা খুবই বিপজ্জনক।

অতএব পান সুপারি সেবন থেকে বিরত থাকতে হবে। মুখের অভ্যন্তরে কোন আলসার বা ক্যান্সার দেখা দিলে যথার্থ চিকিৎসা গ্রহণ করতে হবে।

 

ইকবাল কবির মানিক: আজ ৮ই ফেব্রুয়ারি বৃহস্পতিবার ধোবাউড়া উপজেলা পরিষদের মাসিক সাধারন সভা উপজেলা পরিষদ হলরুমে অনুষ্টিত হয়। এই প্রথম উক্ত সভায় প্রধান উপদেষ্টা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ধোবাউড়া ও হালুয়াঘাটের সাংসদ মিঃ জুয়েল আরেং এমপি। সভার সভাপতিত্ব করেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হাজী মোহাম্মদ মজনু মির্ধা। সভায় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মোস্তফা কামাল হোসেন খান, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নাসিমা খাতুন, উপজেলা মুখ্য নির্বাহী কর্মকর্তা মো: মাহদী হাসান, ইউপি চেয়ারম্যানগণ ও বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তাবৃন্দ।Sadharon sova photo1 সভার শুরুতেই সভাপতি মোহাম্মদ মজনু মির্ধা প্রধান উপদেষ্টার অনুমতিক্রমে উপস্থিত সকলকে স্বাগত জানিয়ে সভার কাজ শুরু করেন। তিনি মাসিক সভায় সকল বিভাগের কর্মকর্তাগনকে নিয়মিত উপস্থিত থাকার বিষয়ে গুরুত্বারোপ করেন। পরে এক এক করে প্রধান উপদেষ্টা মাননীয় সাংসদ মিঃ জুয়েল আরেং এমপি সকল দপ্তরের সার্বিক কার্যাবলির বিষয় শুনেন। তিনি বলেন, উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার এর সাথে পরার্মশ করে সকল উন্নয়নমূলক প্রকল্প ও কার্যাবলী এমনভাবে বাস্তবায়ন করতে হবে যাতে সরকারের ভাবমুর্তি ক্ষুন্ন না হয়। তিনি সকল মতবিরোধের উর্ধ্বে থেকে উপজেলা পরিষদকে কার্যকর ভুমিকা রাখতে সব ধরনের সহযোগিতা করতে উপস্থিত সকলের প্রতি আহ্বান জানান। সভায় সভাপতির সমাপনী বক্তব্যে হাজী মজনু মির্ধা উক্ত সভায় উপস্থিত থাকার জন্য সাংসদ মিঃ জুয়েল আরেং এর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন এবং সরকারের লক্ষ্য ও উদ্যেশ্য বাস্তবায়নে এমপির সাথে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে কাজ করে যাওয়ার দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করে সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে সভার সমাপ্তি ঘোষনা করেন।

নিউজ ডেস্ক : হতাশাগ্রস্থ উপজেলা টেকনিশিয়ানদের চাকুরী রাজস্ব খাতে হস্তাস্তরের পক্ষে রায় দিয়েছে হাইকোর্ট। বৃহষ্পতিবার তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের অধীন দেশের বিভিন্ন উপজেলায় কর্মরত ৩৫৩জন উপজেলা টেকনিশিয়ানকে রাজস্ব খাতে হস্তান্তরের নির্দেশ দেয়া হয়।  ইনফো-সরকার প্রকল্পের অধীন উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ে কর্মরত উপজেলা টেকনিশিয়ানদের রাজস্বখাতে হস্তান্তরের নির্দেশনা চেয়ে দায়ের করা ঢাকা জেলার ধামরাই উপজেলার মো: আতিকুর রহমান, গাজীপুর জেলার সদর উপজেলার মেহেদী হাসান মানিক ও নোয়াখালী জেলার সদর উপজেলার মো. ইসমাঈল হোসেন এর পৃথক ৩টি রীট এর মধ্যে শেষের দুটি রীটের চূড়ান্ত শুনানি হয়েছে। বিচারপতি কে.এম.কামরুল কাদের ও বিচারপতি আশফাকুল ইসলাম এর সমন্বয়ে গঠিত ডিভিশন বেঞ্চ এই রায় দেন।উপজেলা টেকনিশিয়ান সূত্র জানায়, আবেদনকারীদের পক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেন সুপ্রীম কোর্টের আইনজীবী এ্যাডভোকেট মোহাম্মদ ছিদ্দিক উল্যাহ মিয়া এবং রাষ্ট্রপক্ষের ছিলেন ডেপুটি এটর্নি জেনারেল আল আমিন সরকার।

সোনারগাঁ উপজেলায় কর্মরত, উপজেলা টেকনিশিয়ান ঐক্য পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সহসভাপতি খায়রুল আলম জানান, দেশের ৪৮৭টি উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ে উপজেলা টেকনিশিয়ানদের প্রকল্পের মেয়াদ শেষে চাকুরি রাজস্বখাতে হস্তান্তর করতে হবে, সরকারের নীতিগত সিদ্ধান্ত থাকা সত্বেও বাস্তবায়ন না হওয়ায় পর্যায়ক্রমে ৩টি রীট মামলা দায়ের করা হয়। টেকনিশিয়ানদের রাজস্বখাতে হস্তান্তর না করায়, রাজস্বখাতে হস্তান্তরের নির্দেশনা চেয়ে মহামান্য হাইকোর্টে পৃথক তিনটি রীট দায়ের করেন ৩৫৩জন উপজেলা টেকনিশিয়ান। বিভিন্ন সময়ে রুল জারী করে আদালত। উক্ত রুলের চূড়ান্ত শুনানী শেষে বৃহস্পতিবার মহামান্য হাইকোর্ট প্রথম রীটের রায় অনুসায়ী পরবর্তী আরো ২টি মামলার রায় তাদের পক্ষে দেন।

এ রায় কার্যকর হলে ডিজিাল বাংলাদেশের সকল উপজেলার ডিজিটাল সেবার প্রকৃত সুফল পাবে জনগন এমনটাই প্রত্যাশা উপজেলা টেকনিশিয়ানদের।

 

নিউজ ডেস্ক:  ধোবাউড়ায় প্রাথমিক শিক্ষার গুণগত উন্নয়ন বিষয়ক সভায় জনপ্রতিনিধি, উপজেলা প্রশাসন কর্মকর্তা, শিক্ষক, অভিভাবক ও সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় করেন ময়মনসিংহের জেলা প্রশাসক মো: খলিলুর রহমান।

আজ সকাল ১১ টায় ধোবাউড়ায় প্রাথমিক শিক্ষার গুণগতমান উন্নয়ন বিষয়ক মতমিনিময় সভা উপজেলা পরিষদ চত্বরের মুক্তমঞ্চে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাহদী হাসানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন উপজেলা শিক্ষা অফিসার আন্জু আরা বিথী।

বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোফাজ্জল হোসেন, উপজেলা চেয়ারম্যান হাজী মোহাম্মদ মজনু মির্ধা, ভাইস চেয়ারম্যান মোস্তফা কামাল হোসেন খান, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নাছিমা খাতুন, সহকারী কমিশনার (ভূমি) ফরিদা ইয়াছমিন, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক প্রিয়তোষ বিশ্বাস বাবুল, অফিসার ইনচার্জ শওকত আলম পিপিএম। অনুষ্ঠার পরিচালনা করেন সহকারী শিক্ষা অফিসার ওমর ফারক।

জেলা প্রশাসক শিক্ষার গুণগতমান উন্নয়নে সভায় উত্থাপিত সমস্যাসমূহ সমাধানকল্পে সর্বোচ্চ গুরুত্বের সাথে কাজ করার অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন। তিনি বলেন, ‘ধোবাউড়ার প্রতি আমার সুনজর রয়েছে; এবারের বন্যায় সর্বোচ্চ বরাদ্ধ দেওয়া হয়েছে। তিনি আরো বলেন, বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ কৃষকদের কৃষি পূণর্বাসনের ব্যবস্থা  করার পাশাপাশি অচিরেই নিতাই নদীর কালিকাবাড়ী বেড়ীবাঁধের কাজও শুরু হবে।’

মতবিনিময় সভার আগে জেলা প্রশাসক আকস্মিক বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ কৃষক পরিবারের মাঝে আর্থিক অনুদানের  চেক বিতরন করেন।

এছাড়াও তিনি নিয়মিত পরিদর্শনের অংশ হিসেবে ধোবাউড়া উপজেলার অন্তর্গত একটি বাড়ি একটি খামার প্রকল্পের অধীনে আয়লাতলী গ্রাম উন্নয়ন সমিতি, গোয়াতলা ইউনিয়ন পরিষদ, গোয়াতলা ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টার এবং ৩ নং ধোবাউড়া ইউনিয়নের অন্তর্গত তারাকান্দি কমিউনিটি ক্লিনিক পরিদর্শন করেন।Photo100

স্টাফ রিপোর্টার: আজ শনিবার বেলা ১১টায় ধোবাউড়া উপজেলার ৪নং পোড়াকান্দুলিয়া ইউনিয়নের নিদয়া বিলে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মোঃ মাহদী হাসান। ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনার সময় ১০ হাজার মিটার অবৈধ কারেন্ট জাল সহ দুইজন জেলেকে আটক করা হয়। অতঃপর পোড়াকান্দুলীয়া বাজার নদীর পাড়ে জাল পুড়িয়ে দিয়ে উদয়পুর গ্রামের জেলে জালাল উদ্দিন (৫০) কে ৪ হাজার টাকা ও মিয়া হোসেন (৪০) কে ১ হাজার টাকা জরিমানা করে আদায় করা হয়। এ সময় উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা হুুমায়ন কবীর, ইউপি চেয়ারম্যান স্বপন তালুকদার, এসআই মাহমুদুল হাসান মন্ডল উপস্থিত ছিলেন।Photo curent Net

স্টাফ রিপোর্টার : প্রতিবছর বাংলাদেশে বজ্রপাতে মৃত্যুর ঘটনায়  প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা মোতাবেক দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তর সম্প্রতি সারাদেশে বজ্রপাত নিরোধক হিসাবে কাবিখা- টিআর কর্মসূচির আওতায় শনিবার সকাল ১০ টায় ধোবাউড়া উপজেলায় গ্রামীণ রাস্তার দুই পাশে ২হাজার ৮শত তালগাছের চারা রোপন কর্মসূচির শুভ উদ্বোধন করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ মাহদী হাসান। ধোবাউড়া উপজেলা প্রশাসন ও দুর্যোগ ব্যবস্থা অধিদপ্তরের উদ্যোগে সদর ইউনিয়নের ধোবাউড়া মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের খেলার মাঠ হতে দর্শা রাস্তায় তালগাছ রোপন করে এ কর্মসূচির উদ্বোধন করা হয়। এসময় উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মুহ: জাকির হোসেন, উপ সহকারী প্রকৌশলী মজনু মিয়া, বাঘবেড় ইউপি চেয়ারম্যান ফরহাদ রব্বানী সুমন ও সদর ইউপি সদস্যগণ উপস্থিত ছিলেন। পরে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার কার্যালয় থেকে সাতটি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও সদস্যদের মাঝে প্রকল্পের নির্দেশনা মোতাবেক লাগানোর জন্য সংগৃহীত তালগাছের চারা বিতরন করা হয়।

সর্বশেষ সংবাদ

0 87
স্টাফ রিপোর্টার: আজ ১৫ ই আগস্ট ধোবাউড়ায় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমান এর ৪৩ তম শাহাদত বার্ষিকীতে জাতীয় শোক দিবস র‌্যালী ও আলোচনা...

বাণিজ্য

0 1119
ধোবাউড়া সংবাদদাতা: গতকাল শুক্রবার বেলা ২টায় ধোবাউড়া বাজারে সিএনজি অটোটেম্পু-মাহিন্দ্র শ্রমিক ইউনিয়ন ধোবাউড়া-উপজেলা শাখার উদ্যোগে শ্রমিক কার্ড বিতরণ ও পরিচিতি অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।...
Web Design BangladeshBangladesh Online Market