উপজেলা টেকনিশিয়ানদের রাজস্ব খাতে হস্তান্তর করতে হাইকোর্টের রায়

উপজেলা টেকনিশিয়ানদের রাজস্ব খাতে হস্তান্তর করতে হাইকোর্টের রায়

নিউজ ডেস্ক : হতাশাগ্রস্থ উপজেলা টেকনিশিয়ানদের চাকুরী রাজস্ব খাতে হস্তাস্তরের পক্ষে রায় দিয়েছে হাইকোর্ট। বৃহষ্পতিবার তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের অধীন দেশের বিভিন্ন উপজেলায় কর্মরত ৩৫৩জন উপজেলা টেকনিশিয়ানকে রাজস্ব খাতে হস্তান্তরের নির্দেশ দেয়া হয়।  ইনফো-সরকার প্রকল্পের অধীন উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ে কর্মরত উপজেলা টেকনিশিয়ানদের রাজস্বখাতে হস্তান্তরের নির্দেশনা চেয়ে দায়ের করা ঢাকা জেলার ধামরাই উপজেলার মো: আতিকুর রহমান, গাজীপুর জেলার সদর উপজেলার মেহেদী হাসান মানিক ও নোয়াখালী জেলার সদর উপজেলার মো. ইসমাঈল হোসেন এর পৃথক ৩টি রীট এর মধ্যে শেষের দুটি রীটের চূড়ান্ত শুনানি হয়েছে। বিচারপতি কে.এম.কামরুল কাদের ও বিচারপতি আশফাকুল ইসলাম এর সমন্বয়ে গঠিত ডিভিশন বেঞ্চ এই রায় দেন।উপজেলা টেকনিশিয়ান সূত্র জানায়, আবেদনকারীদের পক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেন সুপ্রীম কোর্টের আইনজীবী এ্যাডভোকেট মোহাম্মদ ছিদ্দিক উল্যাহ মিয়া এবং রাষ্ট্রপক্ষের ছিলেন ডেপুটি এটর্নি জেনারেল আল আমিন সরকার।

সোনারগাঁ উপজেলায় কর্মরত, উপজেলা টেকনিশিয়ান ঐক্য পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সহসভাপতি খায়রুল আলম জানান, দেশের ৪৮৭টি উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ে উপজেলা টেকনিশিয়ানদের প্রকল্পের মেয়াদ শেষে চাকুরি রাজস্বখাতে হস্তান্তর করতে হবে, সরকারের নীতিগত সিদ্ধান্ত থাকা সত্বেও বাস্তবায়ন না হওয়ায় পর্যায়ক্রমে ৩টি রীট মামলা দায়ের করা হয়। টেকনিশিয়ানদের রাজস্বখাতে হস্তান্তর না করায়, রাজস্বখাতে হস্তান্তরের নির্দেশনা চেয়ে মহামান্য হাইকোর্টে পৃথক তিনটি রীট দায়ের করেন ৩৫৩জন উপজেলা টেকনিশিয়ান। বিভিন্ন সময়ে রুল জারী করে আদালত। উক্ত রুলের চূড়ান্ত শুনানী শেষে বৃহস্পতিবার মহামান্য হাইকোর্ট প্রথম রীটের রায় অনুসায়ী পরবর্তী আরো ২টি মামলার রায় তাদের পক্ষে দেন।

এ রায় কার্যকর হলে ডিজিাল বাংলাদেশের সকল উপজেলার ডিজিটাল সেবার প্রকৃত সুফল পাবে জনগন এমনটাই প্রত্যাশা উপজেলা টেকনিশিয়ানদের।

 

কোন মন্তব্য নেই

Leave a Reply